পাকিস্তানে ফিরছেন পারভেজ মোশারফ ‌নতুন দল গড়ে

পাকিস্তানে ফিরছেন পারভেজ মোশারফ। দুবাই থেকে ভিডিও কনফারেন্স করে পাকিস্তানে ফেরার কথা ঘোষণা করেন পাকিস্তানের সাবেক এই প্রেসিডেন্ট।

জানা গেছে, পাকিস্তান আওয়ামি ইত্তেহাদ দলের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নিয়োগ করা হয়েছে ইকবাল দারকে। তার এই নতুন দলে যোগ দেওয়ার জন্য মুত্তাহিদা কোয়ামি মুভমেন্ট এবং পাকিস্তান সরজমিন পার্টিকে আহ্বান জানিয়েছেন। তার এই জোটে সব দলের নেতারাই একটি রাজনৈতিক দলের প্রতীকে লড়বেন বলে জানিয়েছেন মোশারফ। তেহরিক-ই-ইনসাফের নেতা ইমরান খানকেও তার জোটে যোগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন সাবেক এই রাষ্ট্র প্রধান।

উল্লেখ্য, গত বছরের মার্চে পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রালয় পারভেজ মোশারফকে পাকিস্তান ছাড়ার নির্দেশিকা জারির পর থেকে দুবাইয়ে ছিলেন মোশারফ। সাংবাদিক বৈঠক করে দেশে ফেরার কথা ঘোষণা করলেও ঠিক কবে তিনি পাকিস্তানে ফিরবেন তা সুনির্দিষ্ট করে জানাননি।

ফেসবুকের প্রয়োজনীয় কিছু নিয়ম,আপনি হয়তোবা জানেন না

ফেসবুকে প্রোফাইল নেই আজকালকার যুগে এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া কঠিন

১. একটি ছবিতে সর্বোচ্চ ৫০ জন ব্যক্তি বা পেজকে ট্যাগ করতে পারবেন।

২. সর্বোচ্চ ১৫০ জনকে নিয়ে চ্যাট গ্রুপ তৈরী করতে পারবেন।

৩. সর্বোচ্চ ৫০০০ পেজ লাইক করতে পারবেন।

৪.সর্বোচ্চ ৬০০০ গ্রুপের মেম্বার হতে পারবেন।

৫. সর্বোচ্চ ৫০০০ ফ্রেন্ড এ্যাড করতে পারবেন।

৬. লাইক দেয়ার ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট কোন সীমা নেই। তবে প্রতি ৭ মিনিট পরপর একবারে ৪০ টি করে    লাইক দিলে ব্লক হবেন না। সারাদিন ধরে করা যাবে।

৭. ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠানোর নির্দিষ্ট কোন সীমা নেই। এটা নির্ভর করে একসেপ্ট করার পারসেন্টেজের উপর। মনে করেন আপনি ৫০০ রিকোয়েস্ট পাঠালেন। সেই ৫০০ রিকোয়েস্টই একসেপ্ট করলো। তাহলে কোন সমস্যা হবে না। আবার ৫০ জনকে রিকোয়েস্ট পাঠালেন ৫০ জনই রিজেক্ট করলো। তখন আপনি ব্লক হবেন। তবে এটা ১০০% হতে হবে তেমন নয়। বলা যায় ৮০% হলেই হয়।

৮.আপনি কোন কিছুতে ব্লক হলে যেমন লাইক,কমেন্ট,মেসেজ, রিকোয়েস্ট পাঠানো,গ্রুপে ফ্রেন্ড এ্যাড ইত্যাদি ক্ষেত্রে। সেই ব্লকের

দুশ্চিন্তা মুক্ত রাখার ৫টি উপায় দূর করুন সহজেই

যখনই মানসিক অস্থিরতায় ভুগবেন তখন সব রকম খারাপ আর মন্দ চিন্তা করা থেকে বিরত থাকতে চেষ্টা করুন।

দুশ্চিন্তা এমন একটি জিনিস যা মানুষ ইচ্ছে করে করেন না। আপনা আপনিই কোনো না কোনো কারণে আমরা দুশ্চিন্তাগ্রস্থ হয়ে পরি.

দুশ্চিন্তা মুক্ত রাখার ৫টি উপায়.

1.গভীর ভাবে শ্বাস নিন.

2.মেডিটেশন করুন.

3.মনোযোগ অন্যদিকে সরিয়ে নিন.

4.নিজেকে উপহার দিন একটুকরো চকলেট.

5.শারীরিক পরিশ্রম করুন.

কাদেরের উচিত বিএনপির প্রক্রিয়াকে সমর্থন করা: ফখরুল

সমাবেশ নিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বিভিন্ন মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, প্রতিটি বক্তব্যের মধ্যে নেতিবাচক, উসকানিমূলক কথা বলে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে ব্যাহত করবেন না। একটি গণতান্ত্রিক পরিবেশে ফিরে যাওয়ার জন্য বিএনপি চেষ্টা করছে। ওবায়দুল কাদেরের উচিত হবে বিএনপরি সেই প্রক্রিয়াকে সমর্থন করে ইতিবাচক কথা বলা।

 

আজ শনিবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল এসব কথা বলনে।

বিচ্ছেদ নিয়ে কারো সঙ্গে কোনো কথা হয়নি : শাকিব খান

There was no talk with anyone about the separation

ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় নায়ক শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের মধ্যে বিচ্ছেদ ঘটছে- এমন গুজব গত কয়েকদিন ধরে মিডিয়ায় ভাসছে। শনিবার একটি অনলাইন গণমাধ্যমে এই গুজব নিয়ে সংবাদ প্রকাশ হয়। বিষয়টি নিয়ে শনিবার সন্ধ্যায় যুগান্তরের সঙ্গে এক আলাপে তিনি বলেন, ‘আমি তো কাউকে কিছু বলিনি। কোনো অনলাইন পোর্টাল কিংবা কোনো প্রিন্ট মিডিয়া, টিভি মিডিয়া কারও সঙ্গে এ ব্যাপারে কোনো কথাই হয়নি। এসব কথা ভিত্তিহীন।

শাকিব বলেন, ‘যদি এরকম কিছু ঘটে, তাহলে সেটা সবাই জানবে। এখানে লুকোচুরির কিছু নেই। যারা এসব ছড়াচ্ছেন তারা কখনোই ইন্ডাস্ট্রির ভালো চাননি।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমার সঙ্গে কথা না বলে আমার বরাত দিয়ে এসব যারা ছড়াচ্ছেন কিংবা যেসব অনলাইন আমার সঙ্গে কথা না বলেই আমার মন্তব্য দিয়ে খবর প্রকাশ করছেন তাদের বিরুদ্ধে আমি আইনি ব্যবস্থা নেব। এজন্য আমি আমার আইনজীবীর সঙ্গে পরামর্শ করব।’

ফের কাঁদলেন অপু বিশ্বাস || Apu Faith cried again

ঢাকাই ছবির এই সময়ের ‘সুপারস্টার’ শাকিব খানের সঙ্গে তার বিয়ে ও ভালোবাসার সব কষ্ট একাকী বয়ে বেড়াচ্ছেন স্ত্রী অপু বিশ্বাস। জনপ্রিয় এই নায়িকা এটাও অনুভব করেন, শাকিবও ভালো নেই। কষ্টটা বরং শাকিবেরই বেশি। অপু তো দিন শেষে তবু কাছে পাচ্ছেন ছেলে জয়কে, শাকিব তো তাও পাচ্ছেন না; একাকিত্বই তার সঙ্গী এখন। আর এটা ভেবেও কষ্ট হয় অপুর। একই সঙ্গে নিয়তিকে মেনে নিয়ে শাকিব-পত্নী সবকিছু ছেড়ে দিয়েছেন আল্লাহর ওপর।

গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল আইয়ের বিনোদন বিষয়ক আলোচনা অনুষ্ঠান কিউট সাময়িকীতে এসব বলতে বলতে অঝোরে কাঁদলেন বাংলা চলচ্চিত্রের এই সময়ের সবচেয়ে আলোচিত নায়িকা অপু বিশ্বাস।

শুক্রবার সন্ধ্যার ওই লাইভ অনুষ্ঠানের উপস্থাপক আবদুর রহমান তার কাছে জানতে চান, ‘এখন তোমার স্বামী শাকিব খান যে দূরত্বের মধ্যে আছে, ভবিষ্যতে যদি এই দূরত্ব আরও বাড়তে থাকে তখন তুমি কী করবে?

উত্তরে অপু বলেন, ‘আমি ধরে নেব ভুলটা আমারই ছিল। হয়তো লাইভে আসার কারণে সে আমার প্রতি ক্ষিপ্ত। আমি বাচ্চা পেটে নিয়ে অনেক সাফার করেছি। তখন আমি সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগছিলাম। আমি ভাগ্য, সময়, বিবেচনা- সবকিছুই মেনে নিয়েছি। বেশি কিছু ভাবি না। যেটা হচ্ছে, আল্লাহ তাআলা চাচ্ছেন তাই হচ্ছে। যেটা হবার নয়, আল্লাহ না চাইলে কখনোই হবে না।’

নিয়তিকে মেনে নেয়ার কথা বলতে গিয়ে নিজের একটি ঘটনা তুলে ধরেন অপু। ‘লাইভে আসার আগে আমি বাসায় দুধে সেমাই বসিয়েছিলাম। পাতিলটা নামানোর সময় হাত থেকে পড়ে গেল। কোনোভাবেই আর সেটাকে উঠিয়ে খাওয়া সম্ভব না। ওইটা আমার রিজিকে ছিল না। যতটুকু রিজিকে ছিল ততক্ষণ আমি রান্না করেছি। ফিল করেছি, ঠান্ডা হলে খাব। কিন্তু যখন পড়ে গেছে তখন ফিলটাও নষ্ট হয়ে গেছে। ওটা আর খেতে পারলাম না। আমাকে আবার তৈরি করে খেতে হবে।